ক্রিকেটারদের দাবিগুলো আসলে কোনো দাবিই না

0
52

ক্রীড়া ডেস্ক: ক্রিকেটারদের খেলা বন্ধ করা বা ১১ দফা দাবির পেছনে ষড়যন্ত্র দেখছেন জানিয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ভারত সফরের আগে এ ধরণের সিদ্ধান্ত নিয়ে ভাবার বিষয়। বাইরে থেকে আমার কাছে ফোন আসছে। আইসিসি, এসিসি আমার কাছে বার বার ঘটনা জানতে চাইছে। ওদের দাবি আমাদের না জানিয়ে মিডিয়াকে ডেকে সংবাদ সম্মেলন করা আমাকে অবাক করেছে। ওদের দাবি আমরা পূরণ না করলে সেটা অন্য জিনিস। এটা না করে খেলা বন্ধ? এসব কি?

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বোর্ডের মিটিং শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

বিসিবি সভাপতি জানালেন, ডিপিএলের টাকা বিসিবি থেকে দেওয়া হয়েছে। বিসিবির দেওয়ার কথা না। তবুও বিসিবি দিচ্ছে। কিন্তু ক্লাবের টাকাটা আদায় তো করতে হবে। সবকিছুই একটা পরিকল্পনার অংশ। আমার ধারণা ক্রিকেটাররা দেশকে ভালোবাসে, ক্রিকেটকে ভালোবাসে।

তিনি জানান, তারা ভারত সফরের আগে কেন খেলা বন্ধ করে দেবে? এতে কার ক্ষতি? সবারই ক্ষতি। ওরা আমাদের কাছে আসেনি সেটার একটাই কারণ আমি এগুলো মানব না। বাইরে থেকে কিছু লোক এটা নিয়ে কাজ করছে। মোস্ট ইম্পরটেন্ট ভারত সফরের আগে এটা কী?

বিসিবি সভাপতি ক্রিকেটারদের দাবির প্রেক্ষিতে তার মন্তব্য তুলে ধরা হল:

১. এবার কেবল বঙ্গবন্ধু কাপ, এরপরের বছর আবার আগের ফরম্যাটে ফিরে যাবে। ফ্রাঞ্চাইজিরা কত বেতন দিয়ে ক্রিকেটারদের নেবে সেটা তো আমরা বলে দিতে পারি না।

২. ৮০ জন ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটারকে টাকা দেব? খেলা না পারলেও টাকা দেব? ২০০/৩০০ জন প্লেয়ারকে কন্ট্র‍্যাক্ট দেব?

৩. আম্পায়ার-গ্রাউন্ডসম্যানদের বেতন ৫০% গত মাসেই বাড়িয়ে দিয়েছি। আমি বুঝতেছি না ওদের দাবিটা কিসের?

৪. আমরা কাজ করছি দেখেই আন্দোলন? এগুলো আসলে কোনো দাবিই না।

৫. ফার্স্ট ক্লাসে ছিল ২৫ হাজার সেটা করেছি ৩০ করেছি। এটার পেছনে নিশ্চয়ই কেউ আছে।

৬. সব দাবিদাওয়া আমাদের কাছে বললেই আমরা মেনে নেব… এটা আমাদের কাউকে কেন কিছু বলল না? আর বললে আমরা তো মেনে নেব তাই আর খেলা বন্ধ করতে পারবে না। এই কারণেই ওরা আমাদের না বলে সাংবাদিকদের বলেছে।

৭. আমাদের সাথে কথা না বলেই খেলা বন্ধ?

৮. কোচ পছন্দ হয়নি তাই ওদের এই কাজ। ওরা দেশি কোচ চায়। বিদেশি কোচ চায় না।

৯. আমি কিছুদিনের জন্য সময় চাচ্ছি।

১০. এনসিএল ডমেস্টিকে ক্যামেরা বসিয়েছি। ১/২/৩ ডিভিশনে ক্যামেরা বসিয়েছি।

১১. আসলেই এগুলো কোনো দাবি কিনা এটা নিয়েই সন্দেহ আছে।

১২. আমাদের ক্যাম্প শুরু হচ্ছে প্লেয়াররা গেলে যাবে, না গেলে যাবে না। ওরা বসতে চাইলে বসতে পারে। সবাইকে ভুল তথ্য দিচ্ছে।

১৩. প্রত্যেক ডিস্ট্রিক্টে কোচ আছে। সব দিকে নজর দিয়ে আমরা কাজ করছি।

১৪. আমরা খুঁজে বের করতে চাই এটার পেছনে কি আছে!

১৫. ম্যাচ ফি ৪০ করেছি। চাইলে আরও বাড়িয়ে দেব। কথা তো বলতে হবে।

১৬. চুক্তিবদ্ধ প্লেয়ারদের টাকা বাড়াতে হবে। আমার মনে হয় আমরা বেশি দিচ্ছি। অনেক দেশে আরও কম প্লেয়ার চুক্তিবদ্ধ থাকে।

১৭. স্টাফের সাথে ওদের কি? স্টাফ/গ্রাউন্ডসম্যান/আম্পায়ারদের বিষয়টা সন্দেহজনক। ওদের ৫০% পারিশ্রমিক বাড়ানো হয়েছে।

১৮. ঘরোয়া ওয়ানডে বাড়াতে হবে। ওরা খেলবে কিনা একটু বলবেন। ওরা খেললে চারটা ফরম্যাট দাঁড় করাবো। কিন্তু দাবি আদায় করে খেলবে না সেটা তো হবে না। সবাইকে অবশ্যই খেলতে হবে।

১৯. বিসিবি একটা লিগ চালাবে ওরা খেলবে না তা হবে না। কি বাসে চড়ছে? তারা কি জানে?

২০. ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিষয়টা জানাতে হবে।

ডেইলি২৪লাইভ/ঢাকা/এসএস

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here