হাসেম বিয়ে না করলে আত্মহত্যা ছাড়া পথ নেই রিমার

0
804

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তিন দিন ধরে অনশন করছেন রিমা খাতুন নামে এক প্রেমিকা। গত বুধবার দুপুর থেকে উপজেলার কাউরাইল গ্রামের প্রেমিক আবু হাসেমের (২২) বাড়ির দরজায় বসে আসেন তিনি। এ খবর ছড়িয়ে পড়ায় প্রতিদিন ওই বাড়িতে ভিড় করছে উৎসুক জনতা।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কাউরাইল গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে প্রেমিক আবু হাসেমের সঙ্গে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর কৃঞ্চগোবিন্দপুর গ্রামের মোহবুল হকের মেয়ে রিমা খাতুনের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিক তার সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কও করেছে। এখন বিয়ে করার জন্য চাপ দিলে প্রেমিক হাসেম নানা তালবাহানা শুরু করেন। এ কারণে বুধবার দুপুর থেকে প্রেমিকের বাড়ির দরজায় বসে আমরন অনশন শুরু করেন রিমা খাতুন। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এর আগেও একবার একই দাবিতে হাসেমের বাড়িতে ওঠেছিল রিমা খাতুন। বিষয়টি গ্রামের মাতব্বররা সমাধানের চেষ্টা করলেও হাসেমের পরিবারের লোকজন ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।

প্রেমিকা রিমা খাতুন বলেন, আমার সঙ্গে প্রায় বছর খানেক ধরে আবু হাসেমের প্রেমের সম্পর্ক। এরই মধ্যে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হাসেম আমার সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করেছে। অনেক দিন পেরিয়ে গেলেও বিয়ে না করে নানা রকম তালবাহানা করায় প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেছি। হাসেম আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা ছাড়া আর কোনো পথ নেই।

তিনি জানান, বাড়ি থেকে বেড় করে দিতে হাসেমের পরিবারের লোকজন তাকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করছে। এজন্য তিনি প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা চান।

এ বিষয়ে স্থানীয় তাড়াশ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবুল শেখ বলেন, মেয়েটি তিনদিন ধরে অনশনে রয়েছে বলে শুনেছি। গ্রামের প্রধানদের সঙ্গে বসে বিষয়টি সমাধান করার চেষ্টা করছি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here