বিরলে এবার বিরল ঘটনা, ঘোড়া জবাই করে ২০০ টাকা কেজি দরে মাংস বিক্রি

0
419

দিনাজপুর প্রতিনিধি: বিরল একটি ঘটনা ঘটেছে দিনাজপুরের বিরলে। ঘোড়া জবাই করে মাংস বিক্রির অপরাধে দুইজনকে ছয় মাস করে কারাদণ্ড ও একজনকে ২৫ হাজার জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গত শুক্রবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বিরল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম রওশন কবীর তাদের এ সাজা দেন।

স্থানীয়রা ডেইলি২৪লাইভকে বলেন, বিরলের কাজীপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ও কাঠ ব্যবসায়ী কাইয়ুম আলী গত শুক্রবার (৩০ আগস্ট) সকালে কাজীপাড়া এলাকায় একটি ঘোড়া জবাই করেন। ২০০ টাকা কেজি দরে তারা ঘোড়ার মাংস বিক্রি করেন। বিষয়টি জানা জানি হলে এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। স্থানীয় জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি লোকমান হাকিম বিরল থানায় অভিযোগ করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে শফিকুল ইসলাম ও কাইয়ুম আলী পালিয়ে যান। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে কাঠ ব্যবসায়ী কাইয়ুম আলীর ছোট ভাই রায়হান আলীকে দুই কেজি ঘোড়ার মাংসসহ আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। পরে শফিকুল ইসলাম ও কাইয়ুম আলী দুজনকেই আটক করা হয়।

বিরল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল ডেইলি২৪লাইভকে জানান, ঘোড়া জবাই ও ঘোড়ার মাংস বিক্রি করা আইনসম্মত নয়। এ বিষয়টি নিয়ে এলাকায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে তাৎক্ষণিকভাবে এলাকায় গিয়ে রায়হান আলী নামে একজনকে দুই কেজি ঘোড়ার মাংসসহ আটক করা হয়। পরে সন্ধ্যায় এ ঘটনার মূল হোতা শফিকুল ইসলাম ও আব্দুল কাইয়ুমকেও আটক করা হয়।

এদের মধ্যে কাজীপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ও কাঠ ব্যবসায়ী কাইয়ুম আলীকে ছয় মাস করে কারাদণ্ড ও রায়হান আলীকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ডেইলি২৪লাইভ/ঢাকা/এসএস

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here